বাংলাদেশ , শনিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২০

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে সাড়ে পাঁচশ অবৈধ গ্যাস-সংযোগ বিচ্ছিন্ন।

লেখক : AjKMuSbt | প্রকাশ: ২০২০-০১-১৬ ১৭:১৫:১৬

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে সাড়ে পাঁচশ অবৈধ গ্যাস-সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পঙ্কজ বড়ুয়ার নেতৃত্বে ছয়জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে প্রায় ২০ হাজার মিটার গ্যাস পাইপ অপসারণ করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে সদর উপজেলার মজলিশপুর ইউনিয়নের বাকাইল গ্রামে অবৈধ গ্যাস-সংযোগ দিয়ে বিভিন্ন বাড়ি, বাণিজ্যিক হোটেল এবং চুন কারখানা পরিচালিত হচ্ছিল। এর প্রেক্ষিতে দুপুরে ইউএনও পঙ্কজ বড়ুয়ার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযাচন পরিচালনা করা হয়

এ অভিযানে ১৫টি চুন কারখানা ও বাকাইল গ্রামের আবাসিক সাড়ে পাঁচশত অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। এছাড়া অভিযানে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দেয়ার কাজে ব্যবহৃত ২০ হাজার মিটার প্লাস্টিকের পাইপ অপসারণ করা হয়।

ইউএনও পঙ্কজ বড়ুয়া বলেন, জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশনায় অবৈধ গ্যাস-সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণে এ অভিযান চলানো হয়। এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

অভিযান চলাকালে সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এ.বি.এম. মশিউজ্জামান, বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির উপ-মহাব্যবস্থাপক জাহিদুর রেজা, সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিনসহ তিতাস গ্যাস ও ফায়ার সার্ভিসের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন