বাংলাদেশ , শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১

কালীগঞ্জে অপসাংবাদিকতা রোধে সাংবাদিকদের অনশন

লেখক : AjKMuSbt | প্রকাশ: ২০২০-১০-৩০ ১৯:৪৬:১৬

তৈয়বুর রহমান, কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ সাংবাদিকতার পরিচয়পত্র ঝুলিয়ে তৃণমূলে বিচার আচারের নামে প্রহসন, সংবাদ প্রকাশের ভয় দেখিয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অর্থ আদায়, দালালি প্রভৃতি অপকর্মের প্রতিবাদ জানিয়ে অনশন করেছেন গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার বেশ কয়েকজন সাংবাদিক।

এসব অপকর্মের সাথে যারা জড়িত তাদের কারও পকেটে, গলায়, কোমড়ের বেল্টে প্রেস কার্ড ঝুলানো। কিন্তু সংবাদ লেখা ও সংগ্রহের ক্ষেত্রে তাদের কোনো ভূমিকা নেই। এতে সাংবাদিক সমাজ তথা পেশার ইমেজ নষ্ট করা হচ্ছে বলে দাবী করেছেন অনশনকারীরা। বৃহষ্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত কালীগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে অনশন পালিত হয়। অনশনের উদ্যোক্তা ও দৈনিক সমকালের কালীগঞ্জ প্রতিনিধি আহাম্মদ আলী বলেন, অতি সম্প্রতি কালীগঞ্জের বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি দপ্তর ও জনবহুল জায়গাগুলোতে কার্ডধারী সাংবাদিকের সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

একই এলাকায় একই গণমাধ্যমের দুই বা ততোধিক পরিচয়পত্রধারী পরিচয়পত্র ঝুলিয়ে পেশার নীতিমালা বা ন্যুনতম বৈশিষ্ট্য রক্ষা করছে না। পরিচয়পত্র প্রদর্শনের আড়ালে তারা তৃণমূলে বিচার আচারের নামে প্রহসন, সংবাদ প্রকাশের ভয় দেখিয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অর্থ আদায়, দালালি প্রভৃতি অপকর্মের সাথে লিপ্ত রয়েছে।

তারা সংবাদ লেখা বা সংগ্রহের কাজে যুক্ত নয়। সংবাদ লেখার সামান্যতম সক্ষমতাও তাদের নেই। মসজিদের ইমাম, ফার্মেসী ব্যবসায়ী, বিকাশ এজেন্ট, মুদি দোকানী, মাদক কারবারী, রেন্ট-এ-কার ব্যবসায়ী, দাদন ব্যবসায়ী, জমির দালাল, পুলিশের সোর্স, হার্ডওয়ার ব্যবসায়ী, প্রবাসী, হকার, কবিরাজ, বিভিন্ন কোম্পানীর বিক্রয় প্রতিনিধি, ব্যাটারীচালিত অটোরিক্সাচালক, প্রাইভেটকারের চালকসহ নানা অপকর্ম করা কিছুসংখ্যক লোক সাংবাদিকতার পরিচয় বিলিয়ে পেশার সুনাম নষ্ট করছে। এতে ব্যাক্তির মানহানির চাইতে সাংবাদিকতা পেশার সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে।

আর পেশার সম্মান রক্ষার তাগিদ থেকেই তিনি ব্যানার নিয়ে শহীদ মিনারে অনশনে বসে পড়েন। একপর্যায়ে স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মী আব্দুর রহমান আরমান, রফিক সরকার, আশরাফুল হক শিশির, দৈনিক মানবকন্ঠের মো. ওমর আলীসহ বেশ কয়েকজন সাংবাদিক অনশনে যোগ দেন।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হক বলেন, তিনিসহ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহিনা আক্তার, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহানাজ আক্তার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি পরিমল চন্দ্র ঘোষ, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলামসহ বিভিন্ন কমিউনিটির প্রতিনিধিরা সাংবাদিকদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন। পরে প্রতিনিধিরা অপসাংবাদিকতা নির্মূলে সকলকে একসঙ্গে কাজ করার আশ্বাসে পানি ও শরবত পান করিয়ে অনশন ভঙ্গ করান।

Print Friendly, PDF & Email